শনিবার, অক্টোবর ১৯

সন্তানদের ‘চৌকিদার’ বানাতে চাইলে মোদীকে ভোট দিন : কেজরিওয়াল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিজেপির নির্বাচনী স্লোগান ‘ম্যায় ভি চৌকিদার’কে কটাক্ষ করে তাকে বিজেপির বিরুদ্ধেই ব্যবহার করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমী পার্টি প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ভারতের জনতাকে উদ্দেশ করে কেজরিওয়াল বলেন, “যদি আপনাদের সন্তানদের চৌকিদার বানাতে চান, তাহলে বিজেপিকে ভোট দিন।

নিজের টুইটারে কেজরিওয়াল বলেন, “মোদীজি চান, দেশের সবাইকে চৌকিদার বানাতে। যদি আপনারাও আপনাদের সন্তানকে চৌকিদার বানাতে চান, তাহলে মোদীজিকে ভোট দিন। আর যদি চান, আপনাদের সন্তানরা সঠিক শিক্ষা পেয়ে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, আইনজীবী হোক, তাহলে সৎ এবং উচ্চশিক্ষিত আপ প্রার্থীদের ভোট দিন।”

গত শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের জন্য বিজেপির স্লোগান তুলে ধরেন, ‘ম্যায় ভি চৌকিদার’। টুইটে প্রধানমন্ত্রী লেখেন, “আপনাদের চৌকিদার নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে শক্ত হাতে দেশের হাল ধরে আছে। কিন্তু আমি একা নই। যাঁরা সমাজের নোংরা পরিষ্কার করেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করেন, তাঁরা প্রত্যেকে চৌকিদার। যাঁরা প্রতি মুহূর্তে দেশের উন্নতির জন্য পরিশ্রম করেন, তাঁরা প্রত্যেকে চৌকিদার। আজকে, প্রত্যেক ভারতীয় বলছেন, ম্যায় ভি চৌকিদার।”

এই টুইটের সঙ্গে এই নির্বাচনী প্রচারের ভিডিয়োও প্রকাশ করেন মোদী। এই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের, বিভিন্ন ধর্মের মানুষ বিজেপির ভালো কাজের প্রশংসা করছেন। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ মোদীর সুরে সুর মিলিয়ে বলছেন, ‘ম্যায় ভি চৌকিদার।’ পরের দিনই নিজেদের টুইটার অ্যাকাউন্টে নাম বদলের হিড়িক পড়ে যায় বিজেপিতে। সবার আগে মোদী নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে নাম বদলে লেখেন ‘চৌকিদার নরেন্দ্র মোদী।’ তারপরেই প্রধানমন্ত্রীকে অনুসরণ করে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযুষ গোয়েল, জেপি নাড্ডা, হর্ষ বর্ধন, ধর্মেন্দ্র প্রধান, বিজেপির তরফে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা মুকুল রায়রা নিজের নামের আগে চৌকিদার বসান। সন্ধ্যার মধ্যে কার্যত বিজেপির সব নেতা-মন্ত্রীদের নামের আগে চৌকিদার লেখা হয়ে যায়।

এই চৌকিদার প্রসঙ্গেই বিরোধীদের সবথেকে বেশি সমালোচনার মুখে পড়েছেন নরেন্দ্র মোদী। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বারবার মোদীকে আক্রমণ করে বলেছেন, ‘চৌকিদার চোর হ্যায়।’ সম্প্রতি এক সভা থেকে রাফায়েল চুক্তির কথা তুলে এনে মোদীর উদ্দেশে তোপ দেগেছিলেন রাহুল গান্ধী। বলেছিলেন, “পাঁচ বছর আগে চৌকিদার বলেছিলেন তিনি দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। তিনি বলেছিলেন কংগ্রেস মুক্ত ভারত বানাবেন। আজকে ‘অচ্ছে দিন আয়েঙ্গে’ স্লোগান পরিবর্তন হয়ে ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ স্লোগান হয়ে গিয়েছে।”

মঙ্গলবার আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদীর এই স্লোগান এখন ট্রেন্ডিং। টুইটারে লক্ষ লক্ষ মানুষ নিজেদের নামের আগে ‘চৌকিদার’ বসাচ্ছেন। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে মানুষের মধ্যে বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কতটা ভালোবাসা রয়েছে।

আরও পড়ুন

টিকিটে এখনও মোদীর ছবি! রেলকে নোটিস পাঠাচ্ছে নির্বাচন কমিশন

Comments are closed.